মিথিলার বর্তমানে কারো সাথে বৈবাহিক সম্পর্ক নাই।ডিভোর্সের পর থেকে সে সিংগেল।একই সাথে সে প্রাপ্তবয়স্ক।
প্রাপ্তবয়স্ক দুইজন ছেলেমেয়ের পারস্পরিক সম্মতিতে Live-Together বাংলাদেশের আইনে অবৈধ নয়।
হ্যা, আপনি বলতে পারেন – এটা ধর্মীয় নৈতিকতা বিরোধী। কিন্তু দেশ চলে আইনের দ্বারা, ধর্মীয় অনুশাসন দ্বারা নয়।
যেহেতু কোনপ্রকার Penal Law দ্বারা লিভ টুগেদারকে একটি ‘অপরাধ’ হিসাবে ‘শাস্তিযোগ্য’ করা হয়নি, সেহেতু মিথিলা কার সাথে থাকবে, ঘুমাবে এ ব্যাপারে তার সম্পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে। আমরা বরং তার ব্যক্তিগত ছবি তার অনুমতি ছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ার পাবলিক প্লাটফর্মে শেয়ার করে অপরাধ করছি।

দ্রষ্টব্যঃ আমি কারো সমর্থন বা বিরোধিতা কোনটাই করছিনা। আইনি দিকটা তুলে ধরলাম শুধু।

লেখক:- রিয়াজুল কাওসার
জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট